বলল, নাস্তিকেরা পরিশোধিত দালাল। ওরা টাকার বিনিময়ে ইসলামের বিরোধিতা করে।

( যেভাবে প্রশ্ন গুলো এসেছে ঠিক সেটাই কপি করে এখানে দেয়া হল)

প্রশ্নঃ (Amirul Islam) যারা নাস্তিক তারা শুধু ইসলামকে নিয়ে লেখে কেন???? আর কি কোন ধরম তাদের নজরে আশেনা???

উত্তরে বললামঃ আপনার কি মনে হয় নাস্তিকেরা শুধু ইসলামকেই কেন্দ্র করে লেখে? তাহলে বলবো আপনার পড়ার অভ্যাস কম। শুধু ধর্ম নিয়ে যারা ব্যাবসা করে ওদের শেয়ার করা লেখাগুলই আপনারা পরেন। অন্যগুলো পড়েও দেখেন না। বেশিরভাগ মুক্তমনা লেখক যুক্তি, প্রমান, বিজ্ঞানের আলোকেই তার লেখা গুলো লিখে থাকে। আপনার মতো মানুষেরা এগুলকে নাস্তিকতার নামে আখ্যায়িত করে নিজেরাই নিজেদের মতো করে ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত করেছে বলে ভেবে বসে থাকেন। তাই আপনাদের মতো মানুষদের বলছি, বেশি করে পড়ুন। যত বেশি পড়বেন ততবেশি জানবেন। হয়ত একদিন আপনি নিজেও এর উত্তর দিতে পারবেন। সুতরাং নাস্তিকরা যে শুধু ইসলাম নিয়ে লেখে , আপনার এই ধারনা ভুল।

প্রশ্নঃ (Amirul Islam) যাক হয় তো আমার ধারনা ভুল। আচ্ছা বলুন তো নাস্তিকরা এ সব লেখে কি লাভ হয় তাদের???? যে কয়টা নাস্তিক মারা গেল চাপাটির কোব খাইয়া,যাকে আমরা অকাল মরন বলি, তাতে কি নাস্তিকদের খুব একটা লাভ হয়েছে??? তাদের মরার জন্য নিজেরাই দায়ি নয়??

উত্তরে বললামঃ মুক্তমনারা মুক্তচিন্তার চর্চা করেন, জানতে চান, বুঝতে চান, বিচার বিশ্লেষণ করে প্রমান সাপেক্ষে একেক মতবাদে বিশ্বাসী হন একেকজন। আপনার কি তাই মনে হয় এদের মৃত্যুর জন্য তারাই দায়ী ? তার মানে আপনি বলতে চাইছেন যে ইসলাম ধর্ম বাঁচানোর নামে, অপমানের জবাব দেয়ার নামে, কটাক্ষ করার নামে, মানুষ জবাই করে হত্যা করাকে আপনি প্রত্যক্ষ ভাবে সমর্থন করছেন এবং করবেন, তাইতো? এবার একটা কথা বলুন তো, ইসলাম না শান্তির ধর্ম? আপনার এই প্রত্যক্ষ ভাবে সমর্থন দেখে আমি তো বলবো, ইসলাম তাহলে কি একেকজন জঙ্গিবাদী তৈরি করছে আপনার মতন? আপনার ভাষ্য মতে, যে ধর্ম মানবতার বিপক্ষে কথা বলে, চাপাতির কোপে মানুষ হত্যা করে, সেই ধর্মের আবার মান আর সম্মান আছে নাকি? ধর্ম বোঝেন? যদি ধর্মকে আসলেই বুঝতেন তাহলে খুব ভাল করে বোঝা উচিৎ কারো করা উক্তি অথবা কটূক্তিতে ধর্মের এতটুকু পরিমান মান, সম্মান নষ্ট হয় না। ধর্ম অনেক গভির। এর বিশালতা অসীম। আপনার মতো মানুষদের পক্ষে এই ধর্মকে বোঝা সহজ হবে না। অকাল মরন ওদের নয় অকাল মরন হয়েছে আপনাদের মতো অমানুষদের।

(Md Mohosin Reza Mmr) বললেন, নাস্তিকেরা পরিশোধিত দালাল। ওরা টাকার বিনিময়ে ইসলামের বিরুধিতা করে।

বললামঃ যদি কোন মানুষ ধর্মের বিরুদ্ধে লিখেই থাকে তাহলে আপনি যে ধর্মে বিশ্বাসী সেই ধর্মে নিশ্চয়ই এর সমাধান এর কথাও লেখা আছে তাইনা? তাহলে এদের মতো আপনারাও কলম তুলে নিচ্ছেন না কেন? আপনারাও লিখুন। যুক্তি দিন। শুধু শুধু দালাল বলে, মানুষ মেরে নিজের ধর্মের অবমাননা আপনারা নিজেরাই করছেন। কাউকে খুন করা এর সমাধান নয়। বরং এতে করে ধর্ম আরও প্রশ্নবিদ্ধ হয়। নিজের ধর্মের উপর যদি আস্থা থেকেই থাকে তবে উপযুক্ত জবাব দিয়েই প্রতিবাদ করুন।

(Md Mohosin Reza Mmr )আসলে প্রতিবাদ করার কিছু নাই। ওদের সাথে যুক্তি দিয়ে কথা বলতে হবে। আর বাস্তবতা কি জানেন ওরা যুক্তির ধার ধারে না। আপনার খুব খুব সুন্দর চিন্তার জন্য অসংখ্য ধন্যাবাদ। আমিও আপনার মতই ধারনা পোষন করি।

বললামঃ যুক্তির ধার কেউ ধারুক বা না ধারুক আপনার মনে সংশয় থকালে সেটা দূর করার দায়িত্বও কিন্তু আপনার। তাই যথাযথ উত্তর দিয়ে সংশয় দূর করার চেষ্টা করুন। আপনার উদ্যোগ দেখে আরও মানুষ উদ্যোগী হবে। কিছু হোক বা না হোক এই অন্ধকার সমাজের অন্ধকার তো দূর হবে।

প্রশ্নঃ(Mahmudul Hassan )Why there was no sword split the head from the body?

উত্তরে বললামঃ আপনারা ধর্মকে এত ছোট করে দেন কেন? আপনাদের ধর্মীয় বিশ্বাস যদি এতই দৃঢ় হয়, তাহলে কারো করা মন্তব্যের যথাযথ জবাব আপনার কাছে থাকা উচিৎ। আপনি তলোয়ার দিয়ে সরাসরি একটা মানুষকে শিরচ্ছেদের কথা বলছেন, আপনাকে মানুষ এর পর্যায়ে ফেলতে চাইনা। সরাসরি একটা মানুষ কে হত্যার কথা বলছেন। যুক্তি দিয়ে প্রমান দিয়ে বুঝিয়ে দেয়ার ক্ষমতা নেই কেন আপনাদের? ধর্ম এত ছোট নয় যে কারো করা কটূক্তিতে কোন ধর্মের মান ক্ষুণ্ণ হয়। আপনাদের মতো মানুষদের জন্য মানুষ ইসলামকে জঙ্গিবাদ ছাড়া কিছুই মনে করে না। আপনারা মনের ভেতরে জঙ্গিবাদ পোষণ করেন বলেই আপনারা অমানুষ।

সব শেষে বললাম, প্রতিবাদের অস্র এই কলম, যদি লেখা ভাল না লাগে তবে লিখেই এর জবাব দিন অযথা আইন নিজের হাতে তুলে না নিয়েই যুক্তি তর্ক দিয়ে বুঝিয়ে ভুল সুদরে দিন। কে নাস্তিক হবে আর কে আস্তিক হবে এটা বিচারের দায়িত্ব আমার বা আপনার কারো নয়।