Articles Posted in the " যুদ্ধাপরাধ " Category

  • তুরস্কের নিতম্ব জ্বলবে না তো কার জ্বলবে?

    পৃথিবীর ইতিহাসের জঘন্যতম বর্বর আর সবচেয়ে ভয়ঙ্কর যে গণহত্যাগুলি হয়েছে সেই তালিকাতে তিন নম্বরে আছে আমাদের বাংলাদেশের ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় এর গণহত্যা। ইতিহাস সাক্ষী , সমস্ত রিসার্চ সাক্ষী, তৎকালীন গণমাধ্যম, সংবাদ পত্রে ফলাও করে ইতিহাস চিৎকার করে বলছে এর সত্যতার কথা। ইতিহাস বিকৃত করে ইতিহাস কে অস্বীকার করার দুঃসাহস করলে আবারো যুদ্ধ হবে। জামাতি […]


  • যুদ্ধাপরাধের পঞ্চম ফাঁসি, আলবদর শীর্ষ প্রধান মতিউর রহমান নিজামী

    শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী জামায়েত নেতা  রাজাকার মতিউর রহমান নিজামী ওরফে মইত্যা রাজাকারের ফাঁসি  সম্পন্ন হল। এই ফাঁসি হল যুদ্ধাপরাধের পঞ্চম ফাঁসি। কারাসুত্রের মাধ্যমেই জানলাম, রাত ৮ টায় ফাঁসি কার্যকরের আদেশ দেয়া হয়। ফাঁসির মঞ্চ ঘিরে লাল সবুজের সামিয়ানা দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছিল। রাত নয়টায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছিল। নিরাপত্তার জন্য মঞ্চ ঘেঁষে ১২ জন বন্দুকধারী কারারক্ষী […]


  • ৩য় শীর্ষ আলবদর নেতা মীর কাশেম আলী ও তার অপরাধ সমূহ-

    মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে, আর এক নরঘাতক রাজাকার মীর কাশেম আলী। মীর কাশেম ১৯৫২ সালে মানিকগঞ্জ জেলার মুন্সিদাঙ্গি সুতারলি গ্রামে জন্মগ্রহন করে। পিতা মীর তায়েব আর মাতা রাবেয়া বেগম এর সন্তান। চট্টগ্রামের কলেজে পড়ার সময় ১৯৬৭ সালে ইসলামী ছাত্র সংঘে যোগ দিয়ে রাজনীতির জীবন শুরু করে। তৃতীয় শীর্ষ এই আলবদর নেতা ১৯৭১ সালে পশ্চিম পাকিস্তানীদের সাথে হাত […]


  • শীর্ষ রাজাকার মতিউর রহমান নিজামী ও তার অপরাধসমূহ

    বাংলাদেশের ইতিহাসে, ঘৃণ্য ও কুখ্যাত আরের রাজাকারের নাম হল মতিউর রহমান নিজামী। মানুষ তাকে মইত্যা রাজাকার নামেও জানে। নিজামী ১৯৪৩ সালে ৩১ মার্চ  পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামে জন্ম গ্রহন করে। তার পিতার নাম লুৎফর রহমান খান। ১৯৬৩ সালে কামিল পাশ করে। পরে ১৯৬৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক শেষ করে। রাজনৈতিক জীবনে পদার্পণ হয় […]


  • কুখ্যাত রাজাকার আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদ ও তার অপরাধ সমূহ

    বাংলাদেশের ইতিহাসের কুখ্যাত ঘৃণ্য রাজাকার ছিল আলবদর বাহিনী প্রধান আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদ। নরঘাতক এই রাজাকার এর জন্ম হয় ১৯৪৮ সালে ফরিদপুর জেলায়। মুজাহিদের পিতা  মওলানা  মোহাম্মদ আলী শান্তি কমিটির সদস্য ছিল। উল্লেখ্য এই শান্তি কমিটিও ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতা বিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত রাজাকার বাহিনীদের মধ্যে অন্যতম একটি দল ছিল। ফরিদপুর থেকে প্রাথমিক শিক্ষা […]


  • একনজরেঃ মুজাহিদ

    মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধী রাজাকার আলবদর বাহিনীর নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ জন্মঃ ২ জানুয়ারি, ১৯৪৮ সাল জন্মস্থানঃ ফরিদপুর, গ্রেফতারঃ ২৯ জুন ২০১০, অভিযোগ দাখিলঃ ১৬ জানুয়ারি ২০১২ ৭ টি অভিযোগ গঠন করা হয় ২১ জুন ২০১২ ফাঁসির রায়ঃ ১৭ জুলাই ২০১৩ রায়ের বিরুদ্ধে আপিলঃ ১১ আগস্ট ২০১৩ আপিল বিভাগে ফাঁসি বহালঃ১৬ জুন ২০১৫ পুনর্বিবেচনার আবেদনঃ ১৪ […]


  • একনজরেঃ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী

    মুক্তিযুদ্ধকালে সাকা চৌধুরী কাজ করতেন পাকিস্তানি দখলদার সেনাদের সহযোগী হিসেবে। তাঁর বাবা ফজলুল কাদের চৌধুরী ছিলেন কনভেনশন মুসলিম লীগের সভাপতি ও পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের স্পিকার। ট্রাইব্যুনালের রায়ে বলা হয়েছে, মুক্তিযুদ্ধের সময় ফজলুল কাদেরের স্বাধীনতাবিরোধী ভূমিকার অন্যতম অংশীদার ছিলেন তাঁর ছেলে সাকা চৌধুরী। বাবার নির্দেশ পালন করার জন্য একাত্তরের ১৩ এপ্রিল চট্টগ্রামের রাউজানে কুণ্ডেশ্বরী ঔষধালয়ের প্রতিষ্ঠাতা […]


  • সাকা নামের এক পাশবিক অধ্যায়ের সমাপ্তি

    যাক, শেষ পর্যন্ত সাকা নামের এই পাশবিক অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটলো। সকল মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের সকলের প্রতি রইলো অভিনন্দন। একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে রাত ১২টা ৫৫ মিনিটে। এভাবেই  মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের শাস্তি দিয়ে কলঙ্কমোচনের পথে আরেকধাপ এগিয়ে গেলো আমাদের এই বাংলাদেশ। […]


  • দুই নিকৃষ্টতম কুলাঙ্গারের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছে।

    ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময় বিভিন্ন মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে প্রমানিত শীর্ষ ২ যুদ্ধাপরাধীকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল তাদের কৃতকর্মের জন্য বাংলাদেশের আইনের বিধান অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন। এই শীর্ষ দুই যুদ্ধাপরাধী হলোঃ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী যাকে সবাই চট্টগ্রামের টেরর হিসেবে চিনে এবং আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ। গতকাল বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১২ টা ৪৫ মিনিটে শীর্ষ […]


  • যুদ্ধাপরাধের দ্বিতীয় ফাঁসি, রাজাকার কামারুজ্জামান এর ফাঁসি

    ২০১৫ সালের ১১ এপ্রিল মুক্তিযুদ্ধের কলঙ্ক মোচনের আর একটা দিন। যুদ্ধাপরাধের ২য় ফাঁসি কার্যকরের দিন।  কুখ্যাত রাজাকার আলবদর নেতা কামারুজ্জামানের ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের দিন। কারা সূত্র থেকে যতটুকু জানতে পারি, সন্ধ্যার মধ্যেই কামারুজ্জামান কে গোসল করিয়ে নেয়া হয়। কারন আজ রাতেই ফাঁসি কার্যকরের নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। ফাঁসি কার্যকরের যাবতীয় প্রক্রিয়া চলছিলো। আমার এবং আমাদের […]